বৃহস্পতিবার, ১৮ই জুলাই, ২০১৮ ইং। ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। রাত ১২:১৪








প্রচ্ছদ » সারাদেশ

দেশের স্মরণকালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রার নতুন রেকর্ড ২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস!

শীতে কাঁপছে সারাদেশ। চলমান শৈত্যপ্রবাহে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। দেশের ইতিহাসে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার নতুন রেকর্ড স্থাপিত হয়েছে। সোমবার (৮ জানুয়ারি) পঞ্চগড় জেলার তেতুলিয়া উপজেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

সোমবার সকালে ঢাকা আবহাওয়া কার্যালয়ের আবহাওয়াবিদ সামছুদ্দীন আহমদ জানান, ভোরে পঞ্চগড় জেলার তেতুলিয়া উপজেলার দেশের সর্বনিম্ন রেকর্ড করা হয়। যা বাংলাদেশের স্মরণকালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা।স্বাধীনতার আগে ১৯৬৮ সালে তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে সর্বনিম্ন ২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল। এরপর আরও কোনদিন তাপমাত্রা এত নিচে নামেনি।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

এ ছাড়া উত্তরাঞ্চলের জেলা নীলফামারীর তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে এসেছে। এর পাশের জেলা দিনাজপুরে তাপমাত্রা বিরাজ করছে ৩ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ঢাকা আবহাওয়া কার্যালয় আরো জানিয়েছে, নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলায় সোমবার ভোরে তাপমাত্রা ২ দশমিক শূন্য ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়। এর পাশের উপজেলা ডিমলায় তাপমাত্রা ছিল ৩ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

রাজধানীতে সোমবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড ভোরে ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এদিকে আমাদের দিনাজপুর প্রতিনিধি ফারুক হোসেন জানান, প্রতিদিনই তাপমাত্রা কমে আসবে বলে জানিয়েছেন দিনাজপুর আবহাওয়া কার্যালয়ের কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন।

আবহাওয়া কার্যালয় জানায়, এ মাসে আরো দুটি শৈত্যপ্রবাহ দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাবে। ঘন কুয়াশা ও কনকনে শীতে গরিব ও দরিদ্র মানুষ গরম কাপড়ের অভাবে সকালে কাজে যেতে পারছেন না। কয়েক দিন থেকে কনকনে শীতে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। রাতে কুয়াশার টিপটিপ বৃষ্টি পড়ছে।

সূর্যের মুখ দেখা গেলেও কনকনে বাতাস অব্যাহত রয়েছে। রাতের মতো দিনের বেলায় যানবাহনগুলো হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে। বাতাসে ঠাণ্ডার তীব্রতা এতটাই বেশি যে খুব বেশি প্রযোজন ছাড়া বাড়ির বাইরে কেউ বের হচ্ছেন না।

চুয়াডাঙ্গা থেকে প্রতিনিধি রফিকুল ইসলাম জানান, সেখানে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে চলেছে। এতে জীবনযাত্রা অচল হয়ে পড়েছে।

সোমবার আবহাওয়া অধিদপ্তর জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে ৫ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটিই জেলায় এ বছরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাবুল আকতার এ তথ্য জানিয়েছেন।

এই তাপমাত্রায় জীবনযাত্রা অচল হয়ে পড়েছে। প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হচ্ছেন না। আকস্মিক এই শীতের কারণে শীতার্ত মানুষ চরম দুর্ভোগে পড়েছেন। বাড়ছে শীতজনিত রোগবালাই। সদর হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ধারণক্ষমতার প্রায় তিন গুণ শিশু চিকিৎসা নিচ্ছে। এদিকে শীতের পাশাপাশি ঘন কুয়াশার কারণে যানবাহন চলাচল দারুণভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে।

আবহাওয়ার সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়, দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং তৎসংলগ্ন দক্ষিণ আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাংশ পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে গৃহবধুকে গণধর্ষণ
নিজেই গা-ঢাকা দিয়েছিলেন ব্যাংকার নাইমুল, হাটহাজারী থেকে উদ্ধার
জেনে নিন কী কী আছে দেশের সর্প্রবথম ছয় লেনের ফ্লাইওভারে!


সর্বশেষ সংবাদ

কাশ্মিরের মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ

আজকে খালেদা জিয়ার রাজনীতির ৩৪ বছর পূর্ণ হল

এই ধরণের বিষয়ে ঝুঁকি নেয়া যায় না, অপেক্ষা করা সাধারণ বিষয়

যুক্তরাষ্ট্র নতুন করে যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল ইরানের উপর

আমি যদি প্রধানমন্ত্রী হতাম ঘাড় ধরে মতিয়া চৌধুরীকে বের করে দিতাম

অনলাইনে মেয়েকে বিক্রি, বাবার ৬০ বছর জেল

চট্টগ্রামে তাবলিগ মসজিদে উত্তেজনা, পুলিশ-পাহারা

সজনে ডাঁটার ঔষধি গুণাগুণ

নতুন নিয়মে পিতৃত্বকালীন ছুটি এক মাস!

ফেব্রুয়ারির মধ্যে কঙ্গনার বিয়ে

মেয়ের চিকিৎসার টাকা যোগাতে বুকের দুধ বিক্রি!

রাজধানীতে নকল প্রযুক্তি পণ্যে সয়লাব বাজার

আইকন তালিকা থেকে বাদ পড়ল সাব্বির রহমান

শূন্যে ছুড়ে বাচ্চাকে আদর করলে হতে পারে মহাবিপদ!

রাজধানীতে ‘জঙ্গি’ অভিযানঃ নিহত ৩

দাম কমেছে পেঁয়াজের

বিমানবন্দর থেকে কাকরাইলে মাওলানা সাদ, সারাদেশ অচল করে দেয়ার হুমকি

‘আর কত বাঁধ হবে তিস্তার ওপরে?’

স্বামী-স্ত্রীর উচ্চতার পার্থক্যেই দাম্পত্য সুখের হয়

ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে খুলনায় আহত ৭





error: Content is protected !!
Copy to clipboard