বুধবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং। ১০ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। সকাল ৯:৫০








প্রচ্ছদ » আইন ও আদালত

সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নির্বাচনে অংশ নেয়ার আদেশ স্থগিত

আর মাত্র কয়েকদিন বাদেই অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জাতীয় নির্বাচন। এ নিয়ে সবার মাঝেই কাজ করছে এক অন্যরকম উত্তেজনা। তবে এবার নির্বাচনে অনেক কিছুই দেখা যাবে যা আগে দেখা যায়নি। এবার মটামটি সব দলই অংশগ্রহণ করছে নির্বাচনে। তবে সবচেয়ে আলোচনায় আছে নতুন দল জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এবং খালেদা জিয়ার জেল।

এবার কোন অপরাধে দণ্ডিত ব্যক্তির বিরুদ্ধে নিম্ন আদালতের দেওয়া সাজা কিংবা দণ্ড স্থগিত হলে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন বলে হাইকোর্টের দেওয়া রায় স্থগিত করেছেন বিশেষ চেম্বার আদালত। এর ফলে দুর্নীতি মামলায় যশোর-২ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাবিরা সুলতানার কারাদণ্ড স্থগিত করে দেয়া হাইককোর্টের আদেশ স্থগিত হয়ে গেল।

বিস্তারিত পড়তে Read More ক্লিক করুন...

একইসঙ্গে বিষয়টি শুনানির জন্য আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গে বেঞ্চ আগামীকাল দিন ধার্য করে দিয়েছেন।

শনিবার (১ ডিসেম্বর) রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী এ আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। অন্যদিকে, সাবিরা সুলতানার পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট এ জে মোহাম্মদ আলী।

গতকাল ২৯ নভেম্বর জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে যশোর-২ আসনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী সাবিরা সুলতানাকে বিচারিক আদালতের দেওয়া সাজা ও দণ্ড স্থগিত করেন বিচারপতি মোহাম্মদ রইচ উদ্দিনের একক হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

পরে সাবিরা সুলতানার আইনজীবী আমিনুল ইসলাম জানান, বিচারিক আদালতের দেওয়া সাবিরা সুলতানার সাজা ও দণ্ড স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। এর ফলে এই আদেশের পর থেকে যারা নির্বাচনে অংশ নিতে চান তারা হাইকোর্টে সাজা বা দণ্ড স্থগিত চেয়ে আবেদন করে নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন।

তবে গত ২৯ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের নিজ কার্যালয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, সংবিধান অনুসারে ২ বছরের অধিক সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ নিতে অযোগ্য হবেন। তাই হাইকোর্টের এই একক বেঞ্চের আদেশের বিরুদ্ধে আমরা আপিলে যাব।