বুধবার, ২৩শে জানুয়ারি, ২০১৯ ইং। ১০ই মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। সকাল ১০:০২








প্রচ্ছদ » প্রধান সংবাদ

রাষ্ট্রপতিই পারেন খালেদা জিয়াকে ক্ষমা করতে

গত দশ মাস ধরে কারাগারে রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম জিয়া।অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় জামিন পেলেও এখনো ছাড়া পাচ্ছেন না তিনি।অন্যান্য ,মামলায় গ্রেফতার থাকায় কারাগারে রাখা হচ্ছে খালেদা জিয়াকে । তবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি অংশগ্রহণ করতে পারবেন না । গতকাল  ফেনী-১, বগুড়া-৬ ও বগুড়া- ৭ আসনের মনোনয়নপত্র বাতিল করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নির্বাচন করার কোনো সুযোগ নেই। বাংলাদেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী দুই বছরের অধিক দণ্ডপ্রাপ্ত ব্যক্তি নির্বাচন করতে পারবেন না।খালেদা জিয়ার দণ্ড একমাত্র রাষ্ট্রপতি ছাড়া অন্য কেউ ক্ষমা করতে পারবেন না। তিনি আবেদন করলে রষ্ট্রপতির কাছে করতে হবে।

বিস্তারিত পড়তে Read More ক্লিক করুন...

রবিবার দুপুরে ফেনী পৌর প্রাঙ্গণে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিসে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন।ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন কমিশনের আপিলের রায়েও খালেদা জিয়ার মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নির্বাচন করার বিষয়টি আদালতের ব্যাপার। তার এ দণ্ড একমাত্র রাষ্ট্রপতি ছাড়া অন্য কেউ ক্ষমা করতে পারবেন না। তিনি আবেদন করলে রাষ্ট্রপতির কাছে করতে হবে।

তিনি বলেন, দেশে একটি সুন্দর নির্বাচনী পরিবেশ বিরাজ করছে। এ পরিবেশ নষ্ট হলে বিএনপির জন্যই হবে। বিএনপির মনোনয়নবঞ্চিতরা তাদের সেক্রেটারি জেনারেলের অফিসে গিয়ে দফায় দফায় হামলা চালাচ্ছেন। যাদের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে; কিন্তু মনোনয়ন পাননি তারাই হামলা করছেন।

বর্তমান মন্ত্রিসভা সম্পর্কে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিশ্বের অনেক দেশেই এমন নিয়ম রয়েছে। আমি মন্ত্রী হয়েও আমার নির্বাচনী এলাকায় পতাকাযুক্ত গাড়ি নিয়ে সভা-সমাবেশে যাচ্ছি না। গণসংযোগ করে নির্বাচনের আচরণবিধি ভঙ্গ করছি না। নোয়াখালীর ডিসি-এসপিকে আমার গণসংযোগে যোগ না দিতে নির্দেশ দিয়েছি।নির্বাচনের পরিবেশ সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, নির্বাচনের পরিবেশ ঠিকই আছে।’৭৫-পরবর্তী যে কোনো সময়ের পর থেকে তুলনামূলক অনেক সুন্দর পরিবেশ রয়েছে।